জিবরীলঃ
পুরাতন হে বন্ধু আমার !
বর্ণ ও গন্ধের এই পৃথিবীর বলো সমাচার ।
ইবলিশঃ
আকাঙ্ক্ষা, সন্ধান সেথা দুঃখ- জ্বালা দাগ বেদনার।

জিবরীলঃ
তোমার বাচন-ভঙ্গি নভোমুখী রহে প্রতি পল,
জান না ,কলঙ্ক তব কখনো কি হবে না নির্মল ?
ইবলিশঃ
এই তত্ত্ব তব কাছে এখনও অজ্ঞাত সংবাদ —
আমার পেয়ালা ভেঙে আমারে যে করেছে উন্মাদ ।
এখানে আমার থাকা অসম্ভব একান্ত বে-মন ,
কক্ষহীন এ পৃথিবী কেমন নিস্তব্ধ অচেতন ।
যার আশাহীনতায় ধরণীর হৃদয়ে জ্বলন–
নিরাশ হওয়া না হওয়া তার জন্য ভালো কি কখন ?

জিবরীলঃ
সমুচ্চ আসন-ভ্রষ্ট তুমি শুধু অস্বীকার দ্বারা —
আল্লাহর নজরে তাই ফেরেশতা যে সমাদর-হারা ।
ইবলিশঃ
আমার দুঃসাধ্য কর্মে মৃত্তিকার চেতনা সঞ্চার–
আমার ঔদ্ধত্যে মুক্ত জ্ঞান, স্পন্দ তারের ঝংকার ।
দেখিছ দাঁড়ায়ে তীরে ভালো আর মন্দের সংগ্রাম —
কে করে বেদনা সহ্য?
তুফানের আঘাত উদ্দাম?
খিজির সহায়হীন ,ইলিয়াসও জানি অসহায়- –
আমার তুফান চলে নদী থেকে সাগরে ঝর্ণায় ।
গোপনে সুযোগ যদি হয় তবে পুছিও আল্লা’য় —
আদমের কিসসা কার রক্ত রঙে সুরঞ্জিত, হায় ।
আল্লাহর স্মরণে আমি বিঁধে আছি কাঁটার মতন,
যা হোক তবুও বলি ,
আল্লাহ আল্লাহ সে-ই একজন ।

তথ্য সূত্র:
বাল-ই জিবরীল
তর্জমা: আ ন ম বজলুর রশীদ
মাহে নাও

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.