সেটাকে মুড়ে রাখা হয়েছিল—
ফিরোজা রঙের এক অতি সুশ্রী গিলাফে
অথচ আমার কাছে- আমার চোখে,
সেটা ছিল পৃথিবীর সবচে ঘৃণ্য আবরণ।
প্রকৃতি পছন্দ করে নগ্নতা,
সমুদ্রের জল নগ্ন,
অরণ্যের তরুলতা নগ্ন
প্রিয়তমার মাথায় গুঁজে দেওয়া—
বেলী ফুলও নগ্ন;
পাখিসব নগ্ন,
শরতের আকাশ নগ্ন,
হেমন্ত-বসন্তেরও।
কবির চোখ নগ্ন,
প্রেমিকের চোখ নগ্ন,
নগ্ন চোখে নগ্নতা দেখাই শ্রেয় !
অথচ তোমাদের কুশ্রী কার্যালাপে
ঐশী নিদর্শন আজ বন্দি,
কৃত্রিম গিলাফে- নিকৃষ্ট আবরণে।
দয়াকরে নগ্নতাকে ঠাঁই দাও ।
মুক্ত করো কিতাবকে তার দুর্দশা থেকে,
কবিও মুক্তি পাক-প্রেমিকও পাক।
পূর্ববৎ সাধনা করুক-কিতাব পড়ুক,
জ্ঞান আহরণ হোক পৃথিবী রাঙাতে,
মাতুক এক খোদার বন্দনাতে ।

কবি পরিচিতি:

ফখরুল ইসলাম
একাদশ শ্রেণি,
ঢাকা সিটি কলেজ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.